• ...
ঢাকা, বুধবার, ২২ নভেম্বর ২০১৭ | শেষ আপডেট ৫১ মিনিট আগে
ই-পেপার

বন্ধুত্ব চিরদিন

সোহানুর রহমান অনন্ত
৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৫, রবিবার, ৮:৪২
‘বন্ধ’ু, খুব ছোট একটি শব্দ। আমাদের দৈনন্দিন জীবনে চলার মাঝে কখনো না কখনো, এই শব্দটির সাথে আমরা সবাই পরিচিত হই। আমাদের ভালো মন্দের অনেকটা জুড়ে রয়েছে এই বন্ধু। একজন ভালো বন্ধু শুধু বন্ধুই না ভালো একজন অভিভাবকও বটে। বন্ধু হলো সে যে চোখ দেখেই মনের কথা বলে দেয়। লিখেছেন সোহানুর রহমান অনন্ত

‘পুরো পৃথিবী এক দিকে আর আমি অন্য দিক, সবাই বলে করছি ভুল আর তোরা বলিস ঠিক...বন্ধু বোঝে আমাকে’। এমন শত শত গান রয়েছে বন্ধু নিয়ে। ‘বন্ধ’ু খুব ছোট একটি শব্দ। আমাদের দৈনন্দিন জীবনে চলার মাঝে কখনো না কখনো, এই শব্দটির সাথে আমরা সবাই পরিচিত হই। বন্ধুর সাথে এমন অনেক কিছুই শেয়ার করা যায়, যা বাবা মায়ের সাথে কিংবা স্বামী স্ত্রীর সাথে শেয়ার করা যায় না। আমাদের ভালো মন্দের অনেকটা জুড়ে রয়েছে এই বন্ধু নামের মানুষটি। একজন ভালো বন্ধু শুধু বন্ধুই না ভালো একজন অভিভাবকও বটে। বন্ধু হলো সে যে চোখ দেখেই মনের কথা বলে দেয়। বিপদের দিনে হেসে বলে, এত চিন্তা করিস না, আমি তো আছি। যখন খুব আপনজনরা পাশ থেকে হারিয়ে যায়, এক টুকরো মেঘের মতো তখন যে মানুষটি পাশে এসে দাঁড়ায় সেই বন্ধু। দুষ্টুমি এবং নানা রকম কথা বলে যে হাসিয়ে দেয়, সেই তো বন্ধু। বন্ধুত্বের কোনো পরিসীমা নেই। বন্ধুত্বের বৈশিষ্ট্য এত বেশি যে লিখে শেষ করা যাবে না। শুধুই যে পরিচিত মানুষই বন্ধু হয়, এমন কিন্তু নয়। অনেক অচেনা মানুষও ভালো বন্ধু হতে পারে। প্রতিটি মানুষ একজন ভালো বন্ধু আশা করে, হোক সে মেয়ে কিংবা ছেলে। আর সৃষ্টি চক্রের অসীম রহস্যের জন্যই মানুষ হয়তো এক সময় সেই বন্ধুকে খুঁজেও পায়। ভালোবাসা আর বন্ধুত্ব সম্পূর্ণ আলাদা একটা জিনিস। প্রকৃত বন্ধুরা, কখনো হারিয়ে যায় না। তবে ব্যস্ততার কারণে অনেক বন্ধুই হয়তো যোগাযোগ রাখতে পারে না। তার মানে এই নয় যে, বন্ধুত্ব নষ্ট হয়ে গেছে। বন্ধুত্ব অদৃশ্য এক বন্ধন, যা সহজে ছিন্ন করা যায় না। ভালোবাসার মানুষ একজন হলেও ভালো বন্ধু একাধিক হতে পারে। স্কুলজীবন থেকেই মূলত বন্ধুত্বে প্রবণতা আমদের মাঝে দেখা যায়। হোক সে ছেলে বন্ধু কিংবা মেয়ে বন্ধু (যদিও অনেকের আবার এই বিষয়টা নিয়ে মতপাথ্যর্ক রয়েছে)। একজন ছেলে আরেকজন মেয়ে ভালো বন্ধু হতেই পারে। বন্ধুত্ব যেমন বয়স বিচার করে হয় না। তেমনি মেয়ে কিংবা ছেলে এটা বিচার করেও হয় না। একজন ভালো বন্ধু যে-কেউ হতে পারে। যে অভিমান করলে হাসাবে আবার সারাটা জীবন বন্ধু হয়ে পাশে থাকবে। বন্ধুর সাথে যতই ভুল বোঝাবুঝি হোক না কেন, এক নিমিষেই ঠিক হয়ে যায়। রাগ হয়ে অনেক সময় বলে ফেলি, তুই আর আমার সাথে কথা বলবি না, কিন্তু বাস্তব চিত্রে দেখা যায়, কথা না বলে থাকাই যায় না। বন্ধুত্বের টান অনেক বেশি। যা হাজার হাজার মাইল দূরে থেকেও অনুভব করা যায়। কারো হয়তো বাল্যবন্ধু কারো আবার ভার্সিটি কিংবা কর্মজীবনের বন্ধু। সৃষ্টির অদ্ভুত নিয়মে যা আজো একইভাবে হয়ে এসেছে। একজন মানুষ আরেকজন মানুষের সাথে বন্ধুত্ব করবে। মাঝে মাঝে বন্ধুদের খুব মিস করি আমরা। চলতি পথে অনেক পুরনো বন্ধুর সাথে দেখা হলে স্বস্তি পাই, অনেক বেশিই ভালো লাগে। সত্যিকার বন্ধুত্ব সব কিছুর ঊর্ধ্বে, অমূল্য সম্পদের মতো। যা হারাতে দেয়া মোটেও বুদ্ধিমানের কাজ নয়। যে ভুলটা আমরা সচরাচর করি তা হলো, বন্ধু থাকতে অনেক সময় তার মূল্য বুঝি না, হারিয়ে গেলে ঠিকই বুঝতে পাই। তাই বন্ধুত্বের সম্পর্ক কখনো নষ্ট করা ঠিক নয়।
পাঠকের মতামত
আপনার মতামত
নাম
ই-মেইল
মতামত
CAPTCHA Image

ফিচার -এর অন্যান্য সংবাদ
উপরে