• ...
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭ | শেষ আপডেট ০১ মিনিট আগে
ই-পেপার

সুপার শেফের খোঁজে

তামিম হাসান
৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৫, সোমবার, ১০:৫৩
‘রূপচাঁদা-দি ডেইলি স্টার সুপার শেফ-২০১৫’-এর দ্বিতীয় সেশনের আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয় গত ১৫ জানুয়ারি। দেশব্যাপী মোবাইল ফোনের মাধ্যমে এই প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়ার জন্য রেজিস্ট্রেশন শুরু হয়। লিখেছেন তামিম হাসান
 
দেশের ভোজ্যতেলের এক নম্বর ব্র্যান্ড রূপচাঁদা ও ইংরেজি পত্রিকা দি ডেইলি স্টার যৌথভাবে দ্বিতীয়বারের মতো আয়োজন করেছে ‘রূপচাঁদা-দি ডেইলি স্টার সুপার শেফ-২০১৫’। এই রিয়েলিটি শোয়ের মাধ্যমে দেশব্যাপী শেফ খোঁজার মিশন হাতে নেয়া হয়েছে। গত বছর সাফল্যের সাথে এই শোয়ের প্রথম  সেশন সম্পন্ন হয়। এই আয়োজনের টিভি পার্টনার এনটিভি।
‘রূপচাঁদা-ডেইলি স্টার সুপার শেফ-২০১৫’-এর দ্বিতীয় সেশনের আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয় গত ১৫ জানুয়ারি। দেশব্যাপী এই প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়ার জন্য রেজিস্ট্রেশন শুরু হয়। ২৮ জানুয়ারি শেষ হয় রেজিস্ট্রেশন। সারা দেশ থেকে হাজার হাজার রন্ধনশিল্পী এতে অংশ নেয়ার জন্য রেজিস্ট্রেশন করেন বলে জানা যায়।
রেজিস্ট্রেশন শেষে ঢাকা, চট্টগ্রাম, বগুড়া, যশোর ও ময়মনসিংহে অডিশনের মাধ্যমে শুরু হয় দ্বিতীয় রাউন্ড। অভিজ্ঞ বিচারক প্যানেল যোগ্য প্রতিযোগীদের অডিশনের মাধ্যমে বাছাই করেন। অডিশন রাউন্ড শেষ হয় ৭ ফেব্রুয়ারি।
এ ধরনের প্রতিযোগিতায় রূপচাঁদা কেন পৃষ্ঠপোষকতা করতে আগ্রহী হলোÑ জানতে চাইলে বাংলাদেশ এডিবল অয়েল লিমিটেডের বিপণন ও মার্কেটিং প্রধান শোয়েব মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান বলেন, ‘বিশ্বের নানান দেশে রিয়েলিটি শোয়ের মাধ্যমে সুপার শেফ খোঁজার প্রক্রিয়া চলমান। আর রান্নাবান্নার কাজে তেল অপরিহার্য উপাদান। বাংলাদেশে রূপচাঁদা সয়াবিন তেল শীর্ষ স্বাস্থ্যসম্মত ও বিশুদ্ধ ভোজ্যতেল হিসেবে দীর্ঘ দিন ধরে সুনাম অর্জন করে আসছে। তাই এ ধরনের একটা প্রতিযোগিতায় আমাদের ব্র্যান্ড রূপচাঁদার সম্পৃক্ততা যৌক্তিক মনে করি আমরা।’
‘রূপচাঁদা-দি ডেইলি স্টার সুপার শেফ-২০১৫’-এর মাধ্যমে সারা দেশ থেকে রন্ধনশিল্পী বাছাইয়ের এই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে রন্ধনশিল্প নতুন উচ্চতায় উঠছে বলে তিনি মনে করেন। পাশাপাশি এই শিল্পে পেশাদারিত্ব ও কর্মসংস্থান সৃষ্টির নতুন করে সুযোগ সৃষ্টি হবে বলেও তার মত।
‘রূপচাঁদা-দি ডেইলি স্টার সুপার শেফ-২০১৫’-এর সুপার শেফ যিনি নির্বাচিত হবেন, তিনি পাবেন নগদ ১০ লাখ টাকা পুরস্কার। দ্বিতীয় ও তৃতীয় হবে যারা, তারা পাবেন পাঁচ লাখ ও তিন লাখ টাকা নগদ পুরস্কার। প্রতিযোগিতার অডিশন রাউন্ডে বিচারক হিসেবে কাজ করেছেন প্রথমবারের বিজয়ী তিনজন। মূল পর্বের বিচারক থাকবেন তারিক আনাম খান, সৈয়দ তাজাম্মুল হক তারেক ও শাহেদা ইয়াসমিন। অস্ট্রেলিয়া ও থাইল্যান্ড থেকেও দু’জন বিশেষজ্ঞ রন্ধনশিল্পী অতিথি বিচারক হিসেবে থাকবেন। আগামী এপ্রিল মাস থেকে অনুষ্ঠানটি এনটিভিতে প্রচার শুরু হবে বলে এর প্রযোজক ওয়াহিদুল ইসলাম শুভ্র জানান।
পাঠকের মতামত
আপনার মতামত
নাম
ই-মেইল
মতামত
CAPTCHA Image

ফিচার -এর অন্যান্য সংবাদ
উপরে