• ...
ঢাকা, সোমবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭ | শেষ আপডেট ৩৩ মিনিট আগে
ই-পেপার

ধোনির উপর ভারতের বিশ্বকাপ নির্ভর করছে : টেন্ডুলকার

নয়া দিগন্ত অনলাইন
১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৫, শনিবার, ৫:০৯
ফাইল ছবি
অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডে শুরু হওয়া বিশ্বকাপের শেষ চারে ভারত খেলবে উল্লেখ করে ব্যাটিং আইকন শচিন টেন্ডুলকার  বলেছেন, এ মেগা ইভেন্টে দেশের ভাগ্য লিখনে বড় ভূমিকা পালন করতে পারেন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি।
শেষ চারটি দলের নাম বলতে বললে ছয়টি বিশ্বকাপ খেলা টেন্ডুলকার বলেন, আমার মতে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে যে চারটি দলকে আমি সেমিফাইনালে দেখছি-অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা ও ভারত।
তিনি বলেন, নিজ মাঠের ২০১১ বিশ্বকাপ শিরোপা ভারতকে অক্ষুন্ন রাখতে হলে পুরো দলকে পারফর্ম করতে হবে।
ধোনির নেতৃত্বে ২০১১ বিশ্বকাপ জেতা টেন্ডুলকার একটি বেসরকারী টিভি চ্যানেলকে বলেন, হ্যাঁ, আমি মনে করি ধোনিই সেই ব্যক্তি। কেননা এই পর্যায়ে তার প্রায় ১০ বছর খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে এবং সে ধৈর্য্যশীল ও একাগ্র। আপনি জানেন এমনকি সের্বাচ্চ পর্যায়ে সে অত্যন্ত ধৈর্য্যশীল ও একাগ্র এবং আপনি একজন নেতার কাজ থেকে যা আশা করেন।
ক্রিকেটের সকল ব্যাটিং রেকর্ড ভাঙ্গার পর ২০১৩ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেয়া লিজেন্ডারি ব্যাটসম্যান ৪১ বছর বয়সী টেন্ডুলকার বলেন, একজন নেতার উত্তেজিত হওয়া উচিত নয়, যে গুন তার মধ্যে আছে এবং আপনি জানেন একটা দলকে এগিয়ে নিতে একজন অধিনায়কের ভাল ফর্মে থাকাটাও সমানভাবে গুরুত্বপূর্ণ। কেবলমাত্র কোন এক জন ব্যক্তি আপনাকে শিরোপা এনে দিতে পারবেনা। পুরো দলের সমর্থন আপনার প্রয়োজন।
তারকা ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলিও একজন খেলোয়াড় যিনি এই বিশ্বকাপে দ্যুতি ছড়াতে পারেন বলে মনে করছেন টেন্ডুলকার।
তিনি বলেন, আমি মনে করি কোহলি ব্রিলিয়ান্ট। তার বড় শক্তি হচ্ছে সে খুব ভালভাবে অবস্থা অনুধাবন করতে পারে। একই সঙ্গে কোন ধরনের পিচ, কন্ডিশনে তাকে ব্যাট করতে হচ্ছে তা-ও সে ভাল বুঝতে পারে। খুব তাড়াতাড়ি সে এটা বুঝতে পারে এবং এরপর কখন কিংবা কিভাবে তাকে রান নিতে হবে সে বিষয়ে নিশ্চিত হতে পারে।
ধুকতে থাকা ওপেনার শিখর ধাওয়ান সম্পর্কে টেন্ডুলকার বলেন, অস্ট্রেলিয়ায় শিখরের সময়টা খুব ভাল যায়নি। তবে সে যখন মাঠে নামবে তার খেলা সেখানকার শক্ত ও বাউন্সি পিচে মানানসই হবে। আমি মনে করি শিখর যেহেতু টুর্নামেন্টের শুরুতেই খেলবে, সে একজন মুল খেলোয়াড় হবে।
এডিলেডে ভারত রোববার পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করবে। যা ইতোমধ্যেই ক্রিকেট বিশ্বে আগ্রহের কেন্দ্র বিন্দুতে পরিণত হয়েছে। তবে টেন্ডুলকার বলেন, প্রতিদ্বন্দি দলটি আগের রমত শক্তিশালী নয় এবং তাদের ধারাবাহিকতারও অভার রয়েছে।
১৯৯২ সাল থেকে পাকিস্তানের বিপক্ষে ভারতের পাঁচ ম্যাচের মধ্যে তিনবার সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হওয়া টেন্ডুলকার বলেন, দেখুন সময়ের সাথে এখন অনেক কিছুতেই পরিবর্তন এসেছে এবং দলেও পরবির্তন হয়েছে। আমার মনে আছে ২০০৩ সালে সেঞ্চুরিয়নে আমি যখন পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলছিলাম সে সময় ওয়াসিম আকরাম, শোয়েব আখতার, ওয়াকার ইউনিস আব্দুর রাজ্জাক, শহিদ আফ্রিদিদের নিয়ে আমি বলব তাদের ছিল বিশ্ব সেরা বোলিং আক্রমন বিভাগ।
কিন্তু এখন তাদের সেই ধরনের বোলিং বিভাগ নেই। কিন্তু আমি বলছিনা যে নতুনরা ভাল করছেনা। তারা এখনো ভাল করতে পারে। কিন্তু আপনি জানেন তাদের ধারাবাহিকতার অভাব রয়েছে। আমার দৃষ্টিতে মোহাম্মদ ইরফান একমাত্র বোলার যে কিনা অস্ট্রেলিয়া নিউজিল্যান্ড কন্ডিশনে ধারাবাহিকভাবে বোলিং করতে পারে। দলে আরো কিছু বোলার রয়েছে। ওয়াহাব রিয়াজ বোলিং করতে পারে। কিন্তু আমি মনে করছি তাদের ধারাবাহিকতার অভাব আছে।
যৌথ আয়োজক নিউজিল্যান্ডের শিরোপা জয়ের সম্ভাবনা সম্পর্কে টেন্ডুলকার বলেন, নিউজিল্যান্ড ওপাকিস্তান খুবই কাছাকাছি দল। আমি মনে করি হিসেবে না ধরা আরেকটি দল নিউজিল্যান্ড। তবে তারা খুবই শক্তিশালী একটি দল। তাদের ভাল বোলিং আক্রমণ রয়েছে এবং তারা সকলেই ব্যাট করতে পারে।
অস্ট্রেলিয়ার তরুণ অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ সম্পর্কে তিনি বলেন, টেস্ট, ওয়ানডে এবং টি-২০ ক্রিকেটে স্টিভ স্মিথ এত ভাল করবে চার মাস আগে কেউ ভাবতে পারেনি। টি-২০ ক্রিকেটে সে সব সময়ই একজন বিপজ্জনক খেলোয়াড় ছিল। কিন্তু টেস্ট ক্রিকেটে এবং অধিনায়কত্বেও সে অসাধারন দেখিয়েছে। যা তাকে বিশ্বকাপের শীর্ষ খেলোয়াড়দের এক জন হিসেবে শক্তিশালী প্রার্থীতে পরিনত করেছে।
পাঠকের মতামত
আপনার মতামত
নাম
ই-মেইল
মতামত
CAPTCHA Image

খেলা -এর অন্যান্য সংবাদ
উপরে