• ...
ঢাকা, বুধবার, ২২ নভেম্বর ২০১৭ | শেষ আপডেট ০৩ মিনিট আগে
ই-পেপার

শুরুতেই উইকেট হারাল জিম্বাবুয়ে

নয়া দিগন্ত অনলাইন
১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৫, রবিবার, ৭:৪৬
৯ ছক্কা ও ৭ বাউন্ডারিতে ১৩৮ রানের চমৎকার ইনিংস খেলেন মিলার
৩৪০ রানের লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নেমে শুরুতেই উইকেট হারিয়েছে জিম্বাবুয়ে। ৬.২ ওভারে ফিলান্দারের বলে ব্যক্তিগত ৫ রানে সাজঘরে ফিরেছেন সিকান্দার রাজা।
আজ রোববার সকালে টসে জিতে দণি আফ্রিকাকে ব্যাট করতে পাঠায় জিম্বাবুয়ে।
৫০ ওভার শেষে ৪ উইকেট হারিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার সংগ্রহ ৩৩৯ রান।
বেলা ১২টায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ১ উইকেট হারিয়ে জিম্বাবুয়ের সংগ্রহ ৬২ রান।
সকালে ডেভিড মিলার ও জে পি ডুমিনির শতকের সুবাদেই রানের পাহাড় গড়ে দক্ষিণ আফ্রিকা।
৯ ছক্কা ও ৭ বাউন্ডারিতে ১৩৮ রানের চমৎকার ইনিংস খেলেছেন মিলার।
৯ ছক্কায় বিশ্বকাপে নতুন রেকর্ড গড়েছেন তিনি। এক ম্যাচে সর্বোচ্চ ৯ ছক্কা হাকিয়ে পেছনে ফেলেছেন অস্ট্রেলিয়ার অ্যাডাম গিলক্রিস্টকে। ২০০৭ এর বিশ্বকাপ ফাইনালে ৮ ছক্কা হাকান তিনি।
এর আগে তালিকার শীর্ষে ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার রান-মেকার রিকি পন্টিং। ২০০৩ সালের বিশ্বকাপের ফাইনালে ভারতের বিপক্ষে তার ৮ ছক্কা হাকান তিনি। ২০০৭ বিশ্বকাপেই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথমে সেই রেকর্ডে ভাগ বসান পাকিস্তানের ইমরান নাজির। এরপর ফাইনালে গিলক্রিস্টের ব্যাট থেকে এসেছিল ওই ৮ ছক্কা।
কম যাননি ডুমিনিও। ৩ ছক্কা ও ৯ বাউন্ডারিতে  ১১৫ রানের ইনিংস গড়েন বা-হাতি এ ব্যাটসম্যান।
২৫৬ রানের পার্টনারশিপ গড়েছেন মিলার-ডুমিনি জুটি।
শুরুতে হ্যামিল্টনে শিরোপা প্রত্যাশী দক্ষিণ আফ্রিকাকে চেপে ধরেছিল জিম্বাবুয়ে। ২১ রানেই বিদায় নিয়েছিল কক ও হাশিম আমলা। তারপর একে একে ডু প্লেসিস ও ডি ভেলিয়ার্সও। তবে এ পর্যন্তই।
এরপর থেকে দলের হাল ধরেছেন মিলার ও ডুমিনি।
৮১ বলে শতক করেন ডেভিড মিলার। ৬টি ছক্কা ও ৩টি বাউন্ডারিতে শতক সাজান তিনি।
অপরদিকে ৯৬ বলে শতক করেন ডুমিনি। অর্ধশতকে ২টি ছক্কা ও ৮টি বাউন্ডারি হাকিয়েছেন তিনি।
পাঠকের মতামত
আপনার মতামত
নাম
ই-মেইল
মতামত
CAPTCHA Image

খেলা -এর অন্যান্য সংবাদ
উপরে